মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা

*ইউনিয়ন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা

২জন

কৃষি কর্মকর্তার প্রোফাইল

 

০১।মোঃ ইব্রাহিম হোসেন তালুকদার

উপসহকারী কৃষি অফিসার

পত্নীচড়া- ব্লক

মোবাইল নং- ০১৭১৯-৫৪৪৯৮১

 

০২।মোঃ সুলতান মিয়া

উপসহকারী কৃষি অফিসার

বড়আলমপুর ব্লক

মোবাইল নং- ০১৭১৬-৪৫৫৭০৩

 

ইউনিয়ন সম্প্রসারণ পরিকল্পনা /২০১০-২০১২ইং

ইউনিয়নঃ বড়আলমপুর

ডাকঘরঃ বড়আলমপুর

উপজেলাঃ পীরগঞ্জ

জেলাঃ রংপুর।

ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল টেকনোলোজি প্রজেক্ট।

 

কার্যবলীঃ

 

একনজরে ইউনিয়নের তথ্যাবলীঃ

 

একটি খাদ্য উদ্বৃত্ত ইউনিয়ন, ইউনিয়নের মোট ২৯.০০ হেঃ আবাদী জমি রয়েছে। এখানকার মাটি বেশ উর্বর । প্রায় ৮৫% জমি সেচ সুবিধার আওতায় রয়েছে। আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার কওে সারা বছর ধরেফসল উৎপাদন করতে ইউনিয়নের কৃষকরা খুবই দক্ষ। ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকা উচুঁ থেকে মাঝারী উচুঁ হওয়ায় স্বাভাবিক বন্যায় ফসল হানির ঝুঁকি কম। ফসল উৎপাদনের আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহাওে কৃষকদের আগ্রহের কমতি নেই। বিভিন্ন ধরণের শাকসজি যেমনঃ পুঁইশাক, লালশাক, ঢেঁড়শ, শিম, মূলা, গাজর, করোলা, চিকিংগা, বেগুন, চালকুমড়া, মিষ্টিকুমড়া প্রভূতি, বিভিন্ন ধরণের ফল যেমনঃ আম, লেচু, কলা, কুল, প্রভিতি অন্যান্য ফসল যেমনঃ ধান, আলূ, গম, পাট, মুগ, মসুর, সরিষা, খেসারী, ভূট্রা, রসুন, ইক্ষু প্রভূতি চাষে এ উপজেলার কৃষকরা খুবই দক্ষ। আর্থ-সামাজিক দিক থেকে এ উপজেলার প্রায় ৮০% কৃষক সচ্ছল। কৃষি উপকরণ সহজলভ্য করা গেলে ইউনিয়নের মোপ উৎপাদন অনেক বৃদ্ধি করা সম্ভব। এতকিছুর পরও বর্তমানে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়া বরেন্দ্র এলাকায় খরিপ-১ মৌসুমে, খরিপ-২ ও রবি মৌসুমে পানির স্বল্পতা পরিলক্ষিত হয়, ফলে সম্পূরক সেচের প্রয়োজন হয়।

 

ক্রমিকঃ

আবাদযোগ্য জমিঃ

পরিমাণঃ

০১।

ইউনিয়নে মোট আবাদযোগ্য

৭০০০ একর

০২।

একক ফসলী জমি

  ৯৫ হেক্টর

০৩।

দুই ফসলী জমি

১৬৫০ হেক্টর

০৪।

তিন ফসলী জমি

১১৫৫ হেক্টর

০৫।

চার ফসলী জমি

----------------

০৬।

আবাদযোগ্য পতিত জমি

----------------

০৭।

ফসলের নিবিড়তা

২৩৬%

 

 

 


Share with :

Facebook Twitter